বন্যার্তদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

ইজাব টিভি প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি হয়েছে। গত কয়েকদিন থেকে অবিরাম বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার প্রায় ৬৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট।আজ (১ অক্টোবর) বৃহস্পতিবার দিন ব্যাপী ৪টি ইউনিয়নের বন্যার্ত ১০টি গ্রামের এক হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন আত্রাই উপজেলা প্রশাসন।

কয়েকদিন থেকে অবিরাম বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে আত্রাই নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে বেরি বাঁধের কয়েকটি ভাঙন দিয়ে প্রবল বেগে পানি ঢুকছে বিলাঞ্চলে। বিশেষ করে উপজেলার হাটকালুপাড়া ইউনিয়নের ফকিরনি নদী ও আত্রাই নদীর জাতআমরুল নামক স্থানের ভাঙন দিয়ে পানি ঢুকে প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ পরিবার-পরিজন নিয়ে পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। অনেকের বসতবাড়ি বন্যা কবলিত হয়ে পড়ায় তারা ঘরবাড়ি ছেড়ে উঁচু ও নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। প্রাথমিক অবস্থায় নৌকাযোগে উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ১০ টি গ্রামের এক হাজার বানভাসি মানুষের মাঝে চাল ডাল তেল লবণ মুড়ি চিরা চিনি নুডুলস বিতরণ করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম। এসময় স্কাউট সদস্য এবং আত্রাই প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বন্যাকবলিত মানুষদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন আত্রাই উপজেলা প্রশাসনের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম। উপজেলার বন্যাকবলিত বিভিন্ন গ্রামে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ বন্যার্ত কোন মানুষ যেন অণাহারে বা অর্ধাহারে না থাকে। সে নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা বন্যার্তদের সর্বাত্বক সহযোগিতা করছি। প্রয়োজনের আরও সহযোগিতা করা হবে। সেই সাথে স্থায়ীভাবে বন্যা নিয়ন্ত্রনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

এ পর্যন্ত উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আত্রাই উপজেলার বন্যার্ত বানভাসী মানুষের মাঝে যে পরিমান ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল বলে জানিয়েছেন অসহায় বানভাসী মানুষেরা।