জিকে শামীমসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য ৭ জানুয়ারি

ইজাব টিভি ডেস্কঃ মানি লন্ডারিং আইনের মামলায় কথিত যুবলীগ নেতা ও বিতর্কিত ঠিকাদার জিকে শামীমসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি। এ মামলায় বৃহস্পতিবার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন আদালতে কোনো সাক্ষী হাজির হননি। এজন্য রাষ্ট্রপক্ষ থেকে সময়ের আবেদন করা হয়। আবেদন মঞ্জুর করে বিশেষ জজ আদালত-১০ এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৭ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন। এর আগে ১৯ নভেম্বর এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। এরও আগে ১০ নভেম্বর মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ (অভিযোগ) গঠন করেন আদালত। ৪ আগস্ট সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সাঈদ ঠিকাদার জিকে শামীমসহ ৮ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেন।

চার্জশিটে ২৬ জনকে সাক্ষী করা হয়। ২০১৯ সালের ২১ সেপ্টেম্বর র‌্যাব-১ এর নায়েব সুবেদার মিজানুর রহমান গুলশান থানায় মানি লন্ডারিং আইনে মামলাটি করেন। মামলায় অভিযোগ আনা হয়, আসামিরা এক কোটি ৮১ লাখ টাকা ও ১৬৫ কোটি ২৭ লাখ টাকা এফডিআরের মাধ্যমে মানি লন্ডারিং করেছেন। মামলার অপর আসামিরা হলেন- দেলোয়ার হোসেন, মুরাদ হোসেন, মো. জাহিদুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, জামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আমিনুল ইসলাম। আসামিরা সবাই কারাগারে আছেন।

গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর গুলশানের নিজ কার্যালয়ে সাত বডি গার্ডসহ গ্রেফতার হন জিকে শামীম। পরে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও মানি লন্ডারিং আইনে তিনটি মামলা করা হয়। এছাড়া গত বছরের ২১ অক্টোবর জিকে শামীমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন। মামলায় জিকে শামীম অবৈধ উপায়ে ২৯৭ কোটি ৮ লাখ ৯৯ হাজার ৫৫১ টাকার জ্ঞাত-আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন বলে অভিযোগ আনা হয়।