শূন্য রানে আউট হয়ে লজ্জার রেকর্ড কোহলির

ইজাব টিবি ডেস্কঃ টেস্টে দীর্ঘদিন ধরে সেঞ্চুরি পায়নি ভারত দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সেই লক্ষ্যেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪র্থ টেস্টে মাঠে নেমেছিলেন কোহলি। কিন্তু সেঞ্চুরি তো উল্টো কথা, শূন্য রানে আউট হয়ে ফিরলেন তিনি। ৮ বল মোকাবিলা করে একরানও যোগ করতে পারেননি স্কোরবোর্ডে। আর এই শূন্য রানের অবদানে লজ্জার এক রেকর্ডে নাম লেখালেন কোহলি।

ভারতের অধিনায়ক হিসেবে টেস্টে সবচেয়ে বেশি শূন্য রানে আউট হলেন কোহলি। অবশ্য সাবেক সতীর্থ মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ছাড়িয়ে যেতে পারেননি তিনি। পরিসংখ্যান বলছে, অধিনায়ক হিসেবে ভারতের টেস্টে ৮ বার শূন্য রানে আউট হয়েছেন কোহলির সতীর্থ মহেন্দ্র সিং ধোনি। মনসুর আলি খান পতৌদি হয়েছেন ৭ বার, ৬ বার এ দুর্ভাগ্যের স্বাদ পেয়েছেন লিজেন্ড কপিল দেব। অধিনায়ক হিসেবে এখন পর্যন্ত কোহলিও ডাক মেরেছেন আট বার। অর্থাৎ লজ্জার রেকর্ডে একজন সঙ্গী পেলেন ধোনি। এতেই শেষ নয়; লজ্জার রেকর্ডের আসল পরিসংখ্যানটাই যে বাকি।

শুধু টেস্টের কথা বাদ দিলে, তিন ফরম্যাট মিলিয়েও হতাশার এই রেকর্ডের শীর্ষে উঠেছেন কোহলি। সেখানে কোহলি পাশে পেয়েছেন ভারত দলের আরেক সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীকে। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে কোহলির শূন্য রানে আউট হওয়ার সংখ্যা ১৩। সৌরভের ‘ডাক’ পাওয়ার সংখ্যাও তাই। এই ক্ষেত্রে ভারতীয়দের মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে ধোনি, ১১টি। আর কপিলের ১০টি। এসব সংখ্যাই ভারত দলকে নেতৃত্ব দানকালীন সময়ের।

তবে সব মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোহলির শূন্য রানে আউট হওয়ার সংখ্যা এখন ২৭টি, যা ভারতের হয়ে যা দশম সর্বোচ্চ। এই পরিসংখ্যানে সবার উপরে আছেন পেসার জহির খান। ৪৩টি শূন্য তার ক্যারিয়ারে। এরপর অবস্থান লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকারের। তার শূন্যের সংখ্যা ৩৪টি। শেবাগের ‘ডাক’ ৩১টি। সৌরভ ও কপিলের ২৯টি। যুবরাজ সিং ২৬টি ডাক মেরেছেন। সুরেশ রায়না ২৫টি, রাহুল দ্রাবিড়ের ‘ডাক’ ২০টি।