রাজশাহীতে যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

ইজাব টিভি ডেস্কঃ রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন হত্যা মামলায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া আরো ২০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। রোববার দুপুরে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক অনুপ কুমার এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণাকালে আদালতে ৩৩ জন আসামি উপস্থিত ছিলেন। রায়ে পাঁচজনকে যাবজ্জীবন, একজনকে ১০ বছরের কারাদণ্ড, চারজনকে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও ১৫ জনকে এক মাস করে কারাদণ্ড দেন আদালত।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু সাংবাদিকদের জানান, এজাহারভুক্ত আসামি ছিল ২২ জন। পরে তদন্ত শেষে আসামি হয় ৩৫ জন। এ মামলায় ৩২ জন সাক্ষী ছিলেন। এর মধ্যে ২২ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দেন। তিনি আরো জানান, ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন ইসমাইল দেওপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। সেদিন বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর কর্মীদের সাথে যুবলীগ কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় তিনি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। সংঘর্ষকালে ইসমাইল গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইসমাইল হোসেন মারা যান। পরে এ ঘটনায় তার স্ত্রী বিজলী বেগম গোদাগাড়ী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।